২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম:
নাগেশ্বরী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নানা অনিয়মের অভিযোগ সিএনজি-ট্রাক এর মুখোমুখি সংঘর্ষ,নিহত এক যুবক। কিশোরগঞ্জে ঐতিহ্য ধরে রাখতে পালকি উৎসব উখিয়া র‍্যাবের অভিযানে ১০ কোটি টাকার আইস উদ্ধার,আটক ১ নাগেশ্বরী উপজেলায় চেয়ারম্যান প্রাথীর পক্ষে সরকারী কর্মচারীর গণসংযোগ পটুয়াখালী কলাপাড়ায় ঘূর্ণিঝড় রেমাল সতর্কতায় কোস্টগার্ডের মাইকিং। সুনামগঞ্জের পরিবেশক সমিতির ৩য় বার্ষিক সাধারন সভায় ১১ সদস্য বিশিষ্ঠ নতুন কমিটি গঠন ঘূর্ণিঝড় রেমাল সতর্কতায় কোস্টগার্ডের মাইকিং প্রায় ৪০ টি গ্রামের মানুষের যোগাযোগের ব্যবস্থা করে দিলেন এম পি এ্যাড.বিপ্লব হাসান পলাশ। ঘূর্ণিঝড়ের আগাম সতর্কসংকেত প্রচার করছে পাথরঘাটা কোস্টগার্ড
আন্তর্জাতিক:
আদিবা আজম মাটি বেসিস-বিইউবিটি লিডার অব দ্য ইয়ার নির্বাচিত ইতিহাসে চিরঞ্জীব “প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি” ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে আইআইইউসি আইন বিভাগের ৩৫ তম ব্যাচ ফিমেল শাখার বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত। মহামান্য রাষ্ট্রপতির সাথে আইআইইউসি প্রতিনিধি দলের সৌজন্য সাক্ষাৎ।  আইআইইউসি তে ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ এন্ড লিটারেচার সোসাইটি কর্তৃক আয়োজিত দেয়ালিকার উন্মোচন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত ইউক্রেনের ১শ’টিরও বেশি ড্রোন প্রতিরোধের দাবী রাশিয়ার রাশিয়ায় অস্ত্র রপ্তানির কথা অস্বীকার করেছে উ. কোরিয়া হামলা জোরদার করতে পারে রাশিয়া: জেলেনস্কি আইআইইউসি এইচ আর ক্লাবের আয়োজনে প্রফেশনাল রিজিউমি রাইটিং এন্ড ইন্টারভিউ স্কিল কর্মশালা সম্পন্ন
  • প্রচ্ছদ
  • অন্যান্য >> দেশজুড়ে
  • চকরিয়ায় শিশু গৃহকর্মীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় অবশেষে হত্যা মামলা দায়ের।।
  • চকরিয়ায় শিশু গৃহকর্মীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় অবশেষে হত্যা মামলা দায়ের।।

      বাংলাদেশ সংবাদ প্রতিদিন

     

    আবদুর রাজ্জাক।।

    কক্সবাজারের চকরিয়ার কাকরায় নির্মমভাবে খুন হওয়া মহেশখালীর গৃহকর্মী কিশোরী মিফতাহ হত্যাকান্ডের ঘটনায় ৬ দিন পর অবশেষে চকরিয়া থানায় বাড়ির গৃহকর্তা হারুন ও তার স্ত্রী সোমা আক্তারের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার (১৬ মে) রাতে শিশুটির বাবা ছৈয়দ নুর বাদি হয়ে চকরিয়া থানায় এই হত্যা মামলাটি রুজু করেছেন।

    মামলায় চকরিয়া উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের হাজিয়ান এলাকার মোহাম্মদ ইসহাক এর ছেলে হারুন ও তার স্ত্রী সোমা আক্তার ছাড়াও আরও দুইজনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে।
    চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী সংবাদে সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শিশু মিফতাহ জান্নাত এর বাবা বাদি হয়ে জমা দেওয়া এজাহারটি মঙ্গলবার হত্যা মামলা হিসেবে রুজু করা হয়েছে। তদন্তের জন্য মামলাটি এসআই গোলাম ছরওয়ারকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি মামলার আসামি গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

    নিহত শিশু মিফতাহ জান্নাত (১০) মহেশখালী উপজেলার কুতুবজোম ইউনিয়নের ঘটিভাঙ্গা গ্রামের পশ্চিম পাড়ার ছৈয়দ নুরের মেয়ে । বাবা পেশায় একজন দরিদ্র জেলে এবং মা গৃহিণী। দারিদ্র্যতার কষাঘাতে পড়ে চকরিয়া উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের হাজিয়ান গ্রামের কামাল হারুনের বাড়িতে শিশু মিফতাহ জান্নাতকে গৃহকর্মীর কাজ করতে দিয়েছিলো তার পরিবার।

    নিহত শিশু মিফতার বাবা ছৈয়দ নুর বলেন, দেড় বছর আগে তার মেয়েকে গৃহকর্মীর কাজের জন্য নিয়ে যায় মহেশখালী পৌরসভার সিকদার পাড়া গ্রামের প্রভাবশালী রশিদ বহদ্দারের স্ত্রী হাছিনা আকতার। সেখান থেকে মিফতাহকে চকরিয়া উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের হাজিয়ান এলাকায় তার মেয়ে (হাছিনা আক্তারের মেয়ে) সোমা আকতারের শ্বশুর বাড়িতে গৃহকর্মীর কাজের জন্য পাঠিয়ে দেন।

    মিফতার বাবা আরও জানান, তার মেয়েকে নির্মম নির্যাতনের মাধ্যমে হত্যা করা হয়েচে। গত বুধবার (১০ মে) দুপুর ২টার দিকে রশিদ বহদ্দার ফোন দিয়ে আমাকে জানিয়েছেন মিফতাহ ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে তার মেয়ের শ্বশুরবাড়ি চকরিয়া উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের হাজিয়ান এলাকায় মারা গেছে।

    নিহত শিশু মিফতাহ’র মামা রুস্তম আলী বলেন, ‘চকরিয়া থেকে ঘটনার দিন বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে আমাদের পাশের এলাকা হিন্দুপাড়া রাস্তায় অ্যাম্বুলেন্স দাঁড়িয়ে থাকতে দেখি। তখন আমাদের সন্দেহ হয়।’

    তখন অ্যাম্বুলেন্স চালক শাহাব উদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে সে জানান, চকরিয়ার কাকারা ইউনিয়নের হাজিয়ান এলাকার হারুন মরদেহ পরিবহনের কথা বলে গাড়িটি ভাড়া করে। তার বাড়ি থেকে বিকেল সাড়ে ৩ টায় কাপড় মোড়ানো মরদেহ গাড়িতে তুলে হারুন, একজন মহিলা ও অপর একজন পুরুষসহ মহেশখালীতে আসে।

    অ্যাম্বুলেন্স চালক আরও জানান, মহেশখালীর ‘গোরকঘাটা বরুনাঘাট এলাকায় গিয়ে গাড়ি থেকে তারা তিনজনই নেমে যায় এবং ইয়াসিন নামের অপর এক ব্যক্তি গাড়িতে উঠে। পুনরায় হিন্দুপাড়া এসে তিনিও কৌশলে গাড়ি থেকে নেমে পড়ে। এরপর খবর পেয়ে মহেশখালী থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করেন।পরে মহেশখালী থানা পুলিশ সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরির পর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে।নিহতের পরিবার সদস্যরা জানিয়েছেন, সুরতহাল প্রতিবেদন করার সময় শিশুটির পুরো শরীর ঝলসানো দেখা যায়। ধারণা করা হচ্ছে, শিশুটির শরীরে গরম তেল কিংবা গরম পানি ঢালা হয়েছে। মাথার পিছনে কয়েক জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। সেখান থেকে রক্ত ঝরছে। এছাড়াও হাতে পা-সহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এটা হত্যাকাণ্ড বলেই ধারণা করা হচ্ছে।নিহতের পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শী লোকজন জানান, মরদেহের সার্বিক অবস্থা দেখে কয়েকদিন আগে তার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।কারণ মরদেহের শরীর ঠান্ডা ছিল এবং আঘাতগুলোও পুরনো মনে হচ্ছে। সম্ভবত শিশুটির মৃত্যুর পর ঘটনা ধামাচাপা দিতে ও মরদেহ গোপন করার জন্য জড়িত ঘাতক চক্র ডিপ ফ্রিজে রেখেছিলেন। ##

    মন্তব্য

    <img class=”alignnone size-full wp-image-29676″ src=”https://bdsangbadpratidin.com/wp-content/uploads/2024/05/IMG_20240503_224849-2.jpg” alt=”” width=”100%” height=”auto” />

    আরও পড়ুন

    You cannot copy content of this page