১৩ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |
আন্তর্জাতিক:
কবিতা প্রেয়সীর দিদার ক্ষেপণাস্ত্রটি বড় ধরনের ওয়্যারহেড বহন করতে সক্ষম : উ.কোরিয়া ক্যারিবীয় অঞ্চলে আঘাত হেনেছে শক্তিশালী হারিকেন ‘বেরিল’ প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে বাইডেন ‘অযোগ্য’, আসছেন মিশেল ওবামা! বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল মিলান ইতালির পাসপোর্ট এ্যান্ড্রোলমেন্ট অ্যাপয়েন্টমেন্টের ভোগান্তির অবসান হলো- কনসাল জেনারেল। আইআইইউসি বার্তা ২য় সংখ্যা প্রকাশনা বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত ট্রেনের জানালার পাশে বসা কে কেন্দ্রকরে লাথি-ঘুষি, যাত্রী নিহত বিজেপি জোট ৩০০ ছুঁইছুঁই, জরিপের আভাস পেরোল বিরোধীরা ভিনদেশ ভালো পড়ালেখার জন্য গবেষণার বিকল্প নেই’আইআইইউসি চেয়ারম্যান-নদভী আইআইইউসিতে কমিউনিটি হসপিটালের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন
  • প্রচ্ছদ
  • শীর্ষ সংবাদ
  • আরও কিছু মনের কথা
  • আরও কিছু মনের কথা

      বাংলাদেশ সংবাদ প্রতিদিন

    কবি শাহাদাত হোসেন তালুকদার>>>

    মত প্রকাশের ধারা ধরণ গতি আকৃতি প্রকৃতি যাই বলেন না কেন তার মাঝে ভিন্নতা থাকা বাঞ্চনীয় বা থাকবেই,
    অনুকরণ বলতে বুঝি সম সৃষ্টি এমন সৃষ্টিকে কোনো মূল্যায়নে সৃজন বলা যাবে না,
    কারণ প্রতিটি মনের অনুভব অনুভুতি চিন্তা চেতনার ভিন্নতার কারণে সৃষ্টির রহস্যের প্রতি মানুষের এত আগ্রহ অনুগ্রহ ও কৌতুহল।

    সাহিত্য চর্চার ক্ষেত্রে লেখা বা কোন লেখকের সৃষ্টিতে গতানুগতিক ভুল বা মনের অজান্তে ত্রুটি বিচ্যুতি থাকতেই পারে,কারণ আমরা কেউ ভুলের উর্ধ্বে না,
    যেহেতু একজন লেখক তার লেখা পত্রস্থ করার সময় হটাৎ স্মরণে আসা একটি উপযুক্ত ও রসালো শব্দ বা বাক্যকে স্পর্শ করতে গিয়ে লিখনী নিজেই তার উদ্দেশ্য বা লক্ষ্যকে সামনে রেখে এগুতে কলম তাড়া করে,
    আমার মত বয়সের লোকজনের জন্য ব্যাপারটা কখনো বা আরও বেশি কঠিন হয়ে দাঁড়ায়।

    লেখার জ্ঞানটা কিন্তু আপনার প্রাতিষ্ঠানিক সনদ সার্টিফিকেট দ্বারা সৃষ্টি হয়না,আপনার যেই চর্চা সাধারণ জীবন ডিঙিয়ে আরও অতিরিক্ত কিছু ভাববার অবকাশ অথবা অনুভবের সাধ্য সামর্থ্য যার অন্তরে বা লিখনীতে নিহিত থাকে আমার মতে সে তিনিই হন একজন লেখক বা কবি কি সাহিত্যিক,
    কেননা বধির কিংবা কালো কুৎসিত যে কেউ তার সৃজন বিন্যাসের ফলে কবি বা লেখক হতে পারেন যদি তার লেখনীর সৌরভ ও সুবাসে পাঠক হৃদয়ে স্থান করে নিতে পারা বা বিমুগ্ধ করতে সক্ষম হন।

    শুধু কবি হওয়ার জন্য কোন লেখক আছে বলে অন্তত আমার মনে হয় না,
    এই সচরাচর ধারা বা নিয়মের বাইরে যদি কেউ থাকে তবে ধরে নিতে হবে ইতিপূর্বে বা ইদানিং আমাদের কাছে বিরক্তি আপত্তি অস্বস্তি পর চরম বিভ্রান্তির যেই ব্যাপারটা নজরে আসে সেটি হলো কবিতা চোরের প্রাদুর্ভাব,
    তাদের মনে রাখা উচিৎ হবে,আমরা সবাই মানুষ কিন্তু কেউ কারো মত না,মানুষের হৃদয় মেধা মনন মস্তিষ্ক তথাপি তার অজস্র সৃষ্টি ও সৃজন ভান্ডার থেকে
    দু’ একটি কবিতা কি়ংবা লেখা চোরি হয়ে গেলে এতে প্রকৃত লেখকের তেমন কিছু যায় আসে না কারণ তার তো সৃষ্টির কোন অভাব নাই সেই তো সৃষ্টির মাঝে বেঁচে থাকে।

    সুপ্রিয় পাঠক মহলে অনুরোধ ও বিনয়ের সহিত বলতে চাইব যে সবার লেখা পড়তেই হবে এবং তাতে কমেন্ট করা বাধ্যতা মূলক তা কিন্তু নয়,
    লেখকের পরিবেশনায় পাঠকের মন গলানোর মত খোরাক না থাকলে তা এড়িয়ে অন্য কোন পাঠকের জন্য ছেড়ে দেওয়া উত্তম,
    কেননা আমাদের স্ব প্রণোদিত সাহিত্য চর্চার জগতে আমরা কেউ কারো শিক্ষক বা ছাত্র নই,ইহা ছাড়া পোস্টিং পরবর্তী লেখা এডিটের সুযোগে যার যার ত্রুটি গুলো লেখকের নিজের চোখে ধরা পড়ে,
    সেহেতু এতে অস্থিরতার কারণ নেই,
    আমরা সবাই একে অপরের সুখে দুখে স্বজন পরিজন এবং আনন্দ বেদনার জীবনে প্রত্যেকেই মানবতার ও মহানুভবতার জন্য সবাই সবার।

    আমার এই আলোচনা কাউকে লক্ষ্য বা উদ্দেশ্য করে নয় বরং আপনারা সবার সাথে আমার ব্যক্তিগত মত বিনিময় ও নিজস্ব আলোকপাত স্বরূপ এই ছোট্ট নিবেদন,
    সুস্থ ও সুন্দর থাকুন,সকলের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি।

    মন্তব্য

    <img class=”alignnone size-full wp-image-29676″ src=”https://bdsangbadpratidin.com/wp-content/uploads/2024/05/IMG_20240503_224849-2.jpg” alt=”” width=”100%” height=”auto” />

    আরও পড়ুন

    You cannot copy content of this page